ঢাকাবৃহস্পতিবার , ৮ অক্টোবর ২০২০
  1. অপরাধ
  2. অর্থনৈতিক
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম
  6. খুলনা
  7. খেলাধুলা
  8. গণমাধ্যম
  9. চট্টগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. জেলা/উপজেলা
  12. জোকস
  13. ঢাকা
  14. তথ্য প্রযুক্তি
  15. ধর্ম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চকরিয়ায় বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার নির্মাণের নামে খতিয়ানভুক্ত জমি জবরদখলের অভিযোগ: হামলায় আহত ৪

একুশে বার্তা
অক্টোবর ৮, ২০২০ ৮:২৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ

কক্সবাজাৱেৱ চকরিয়ায় শহীদ মিনার নির্মাণের নামে এক পরিবারের ভোগ দখলীয় জায়গা জবর দখলসহ ৫ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়-ক্ষতিৱ অভিযোগ। গত ৭ অক্টোবর (বুধবার)সকাল ১১ ঘটিকার সময় উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের আমজাদিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণকে কেন্দ্র করে ঘটনাটি ঘটে। এসময় ভোগ দখলীয় বাগানের মূল্যবান গাছ কেটে লুটপাট ও হামলা চালায়। এসময় জমিৱ মালিক লক্ষ্যারচর ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ছিকলঘাট বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আইয়ুব মো.ইকবাল বাধা প্রদান করলে ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলাকালে তার ভাই ইউপি সদস্য আবুল কালামসহ ৪ জন গুরুতর আহত হন। জমিৱ মালিক বাদী হয়ে রাতে থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, চকরিয়া উপজেলার লক্ষ্যারচর মৌজার বিএস খতিয়ান নং ৭৭৩, বিএস দাগ নং ১৯৯৬ এর ৯ শতকসহ পাশ্ববর্তী ভোগ দখলীয় ও খতিয়ানভূক্ত জমি মালিক আইয়ুব মো.ইকবাল ও আবুল কালাম এমইউপি গং। উক্ত জমির প্রতি লোলুপ দৃষ্টি পড়ে কতিপয় প্রভাবশালী মহলের।

সর্বশেষ ৭ অক্টোবর দুপুর ১১টার দিকে আমজাদিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার নির্মাণের নাম ভাঙ্গিয়ে স্থানীয় মৃত আবুল বাশারের পুত্র মাঈনুদ্দিন ফারুক ওয়াসিমের নেতৃত্বে একদল ভূমিদস্যু বাহিনী স্থানীয় লক্ষ্যারচর ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ছিকলঘাট বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আইয়ুব মো.ইকবাল ও ইউপি সদস্য আবুল কালাম গংয়ের মালিকানাধীন জমি জবর দখলে নিতে হামলা চালানো হয়। এসময় বাগানের প্রায় ৩০০টি বেলজিয়াম গাছ, যার মূল্য অনুমানিক ৫ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি করে। এতে বাধা দিতে গিয়ে হামলায় আহত হয়েছে আইয়ুব মো.ইকবাল, আবুল কালাম এমইউপি, বেলাল উদ্দিন ও ভাতিজা মোঃ আরমান। তাদের কাছ থেকে নগদ ১ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা ও ১৮ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেন। এঘটনায় তারা প্রশাসনের কাছে আইনী সহায়তা চেয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭৩ সালে প্রথমে আমজাদিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয় হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ১৯৭৮ সালে আৱএস খতিয়ান নাম্বার-১৬১৬, এমআরআর খতিয়ান নাম্বার-৫৯৬ এৱ দাগ নাম্বার ১৫৪৩,১৫১৬ ও ১৬৪৭, বিএস খতিয়ান নম্বর ৭৭২ ও ৭৭৩, ১৯৯৬ দাগেৱ ৩০ শতক জমি স্কুলের জন্য দানপত্র করেন। কিন্তু স্কুলের দাবীকৃত ৯৬ দাগেৱ রেকর্ডমূলে ৯ শতকসহ পাশ্ববর্তী ভোগ দখলীয় ও খতিয়ানভূক্ত জমিৱ মালিক আইয়ুব মো.ইকবাল। জবর দখল কারীরা খতিয়ানের তোয়াক্কা না করে জমিৱ প্রতি লোলুপ দৃষ্টি পড়ায় জোরপূর্বক নির্মাণকাজ চালায়।

এ বিষয়ে চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ঘটনার বিষয়ে লিখিত অভিযোগটি পেয়েছি এবং বিকাল তিনটার সময় লক্ষ্যারচর এলাকা হতে ট্রিপল নাইনে কল আসে। তাৎক্ষণিক এসআই রাজিবুল সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছিল কিন্তু অভিযোগ পত্রটি ভিন্ন হওয়ায় তা পুনরায় তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।

প্রিয় পাঠক, আপনিও একুশে বার্তা অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন ekusheybartaonline@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

x