ঢাকামঙ্গলবার , ২৮ ডিসেম্বর ২০২১
  1. অপরাধ
  2. অর্থনৈতিক
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম
  6. খুলনা
  7. খেলাধুলা
  8. গণমাধ্যম
  9. চট্টগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. জেলা/উপজেলা
  12. জোকস
  13. ঢাকা
  14. তথ্য প্রযুক্তি
  15. ধর্ম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রামুর কচ্ছপিয়ায় রাবার ফুটো,কমে গেছে পানি, মাথায় হাত ২ হাজার কৃষকের

স্টাফ রিপোর্টার
ডিসেম্বর ২৮, ২০২১ ৯:৪০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

জাহাঙ্গীর আলম,নাইক্ষ্যংছড়ি,বান্দরবান:
রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের মৌলভীকাটা গ্রামের রাবার ড্যাম রক্ষণাবেক্ষণের অভাব,রাবার ড্যামের উপর দিয়ে চোরাইকাঠ পাচার ও উপজেলা কর্তৃক্ষের যথাযত তদারকি না থাকায় কচ্ছপিয়ার মৌলভীকাটা রাবার ড্যামের রাবার ফেটে গিয়ে পানি সরে গেছে নিচে। ফলে পানিরস্তর আশংকাজনক পরিমান নিচে নেমে যাওয়ায় এই রাবারড্যাম এর অধীনে আর কৃষির আবাদ করা যাবে না আশংকা করছেন ড্যাম এর অধীনে থাকা ২ হাজারের অধিক কৃষক। তারা মনে করেন, এই মূহুর্তে ড্যাম সেলাই বা নতুন ড্যাম বসিয়ে পূণরায় পানি উত্তোলন আদৌ সম্ভব হবে না।
তাই বিপাকে পড়েছে ২ হাজারের অধিককৃষক। তারা মনে করেন,এসব কারসাজী ব্যবস্থাপনা কমিটির। স্থানীয় ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার যথাক্রমে জাকের আহমদ ও মোহাম্মদ ইউনুছ জানান,এই রাবার ড্যাম কচ্ছপিয়ার কৃষকের প্রাণ। এটির রাবার ফেটে গিয়ে ২ দিন ধরে পানি নিচে নেমে যাওয়ায় পানিস্তর আর নেই।
এখন কৃষকদেন প্রাণ যায় যায় অবস্থা। ২ হাজারের অধিক কৃষক বিপাকে পড়েছে এ কারণে। তারা আরো জানান,এ রাবার ড্যাম ফেটে যাওয়ার অনেক কারণ আছে।তন্মধ্যে রক্ষানাবেক্ষণ ও তদারকি না থাকা অন্যতম। দ্বিতীয়ত বালুদস্যুদের কাল ছিলো এটি। এভাবে নানা কারণে
এটি দ্বিতীয়বার ফেটে গিয়ে এ দূর্দশার কবলে পড়ে। এর আগে আরেকবার ফেটে গিয়েছিলো। সেটির সেলাইকৃত অংশ কিন্ত এবার ফাটে নি এখনও। রহস্য কী বের হবে ভালো করে তদন্ত করলে।স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ তৈয়ব বলেন,এখন সেলাই করলেও ততবেশী কাজ হবে না।
হয়তো বা একতৃতীয়াংশ কৃষক তাদের ধান চাষ আবাদ করতে পারবে।
তিনি আরো জানান,এ ড্যাম ফেটে যাওয়ায় কারণ বের করা দরকার। কেননা
কারণ অনেক। তন্মধ্যে বালুদস্যুদের বদনজর একটি। হয়তো কৃষির চাইতে কোটি টাকার বালুই তাদের কাছে বেশী প্রয়োজন ছিলো।
। সুতারাং তদারকীর অভাব,ব্যক্তিকর্তৃক এককভাবে পরিচালনার কারণে এ রাবার ড্যামের এ অবস্থা হলো।
এটির কারণে কারো শত্রু হলেও করার কিছুই তিনি দেখতে পারছেন না।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক কৃষক জানান, উজান থেকে বড়বড় কাঠ নিয়ে এসে ড্যামের উপর দিয়ে খালের নিচের অংশে পারাপার করা হয় রাতের আঁধারে।
এ ছাড়া অদক্ষ পরিচালনা আর উপজেলা কেন্দ্রিক দায়িত্বরত সরকারী টেকঅফিসাররা রবার ড্যামের সভাপতির সাথে আঁতাতের কারণে তদারকি কমিয়ে দেয়ায় এ অবস্থার সৃষ্ট হয়। তারা আরো জানান,এ ব্যবস্থাপনা কমিটি কৃষকদের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ উত্তোলন করলেও দীর্ঘ দিন ধরে কোন হিসেব নিকেশ দেয় না তাদেরকে।
তাদের মতে,যে কোনভাবে পানি কমে গেলে রাবার ড্যামের উপরের অংশ থেকে বালু উত্তোলন সহজ হবে। হয়তো বালু দস্যুদের কেউ এ রাবারটি ফুটো করে দিয়ে পানি কমিয়ে ফেলতে এ কাজ করেছে।

অপর একদল কৃষক জানান,সমিতি সরকারী। মিটিং নেই,হিসেব নেই,তদারকী নেই। কিছুই নেই।
রাবার ড্যামে পানি ওভারফ্লু হলে পানি খরচ ১ থেকে দেড় হাজার টাকা আর পানি কমে গিয়ে ওয়াটার পাম্প বা পানির মেশিন দিয়ে পানি উত্তোলন করলে পানি খরচ নিতে পারবে ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা।
এ কারণে রাবার ড্যামের এ করুন দশা হলো।
এ বিষয়ে এ সমিতির সভাপতি জহির উদ্দিন বলেন,রাবার ড্যামের রাবারের জোড়ায় জোড়ায় ফেটে গেছে। করার কিছুই নেই।
তবে তার বিরুদ্ধে করা অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন এসবই ষড়যন্ত্র। জিও ব্যাগ দিয়ে আজকালের মধ্যে পানি বন্ধ হয়ে যাবে।
উল্লেখ্য,এ রাবার ড্যামের অধিনে চাষ হয় ৬টি বিল এলাকাজুড়ে ধানচাষ । এখানে সমিতির সদস্য সংখ্যা রয়েছে ৯৯১ জন। কৃষক রয়েছে ২ হাজারের অধিক। অনেকে বলেছেন আড়াই হাজার।
এটি জেলার সর্ববৃহৎ রাবার ড্যাম, যা ককসবাজার জেলার রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের বড়জামছড়ি খালের মৌলভীকা্টা এলাকায় । যা গত দেড় দশক আগে নির্মান করা হয়।

প্রিয় পাঠক, আপনিও একুশে বার্তা অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন ekusheybartaonline@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

x
%d bloggers like this: